Indian Railways Inaugarated Its’ First Private Train South Star In Country:দেশে চালু হলো প্রথম বেসরকারি ট্রেন,বছরে ৩.৩৪ কোটি টাকা পাবে রেল 

ভারতে যাত্রা শুরু করলো দেশের প্রথম বেসরকারি ট্রেন। প্রথম এই বেসরকারি ট্রেনটি তার যাত্রা শুরু করে গত মঙ্গলবার তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুর থেকে। রেলের’ভারতের গৌরব’ প্রকল্পের অধীনে এই ট্রেনটি। এই ট্রেনটি বৃহস্পতিবার পৌঁছেছে মহারাষ্ট্রের সিরিডিতে। আবার কোয়েম্বাটুরে ফিরবে আগামী শনিবার। রেলের অধীনে আইআরসিটিসি (IRCTC) ট্রেন চালালেও এই প্রথম কোনো বেসরকারি সংস্থার অধীনে ট্রেন চলছে। 

রেলের তরফ থেকে ১৫০টি ট্রেন বেসরকারি পর্যটন সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।অনেক সংস্থা রেলের পরিকাঠামো ব্যবহার করতে পর্যটন ট্রেন চালানোর জন্য আবেদন জানায়। রেলের তরফ থেকে জানানো হয় যে ওড়িশা,কর্ণাটক সরকারও ট্রেন চালানোর জন্য আবেদন জানায়।

কিন্তু দেশের প্রথম বেসরকারি ট্রেন চালানোর সুযোগ পায় ‘সাউথ ষ্টার’ নামক একটি সংস্থা। বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের ভারতের বিভিন্ন ঐতিহাসিক জায়গা ভ্রমণের জন্য এই ট্রেন চালানো হয়েছে। এই ট্রেনের প্রথম যাত্রা শুরু করে মঙ্গলবার। রেল সূত্রে যেটুকু জানা গেছে এই ট্রেনটি বেশ কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে বৃহস্পতিবার সেটি মহারাষ্ট্রের সিরিডিতে পৌঁছেছে। তার পর পুরো দিন সেটি ওখানেই থাকবে। যাত্রীরা সিরিডি ভ্রমণ করে ফায়ার আসবেন ওই ট্রেনেই। পর দিন সকালে ওখান থেকে শুরু করে শনিবার দুপুরে আবার তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুরে এসে পৌঁছবে। 

রেলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে প্রথম এই ট্রেনে যাত্রীর সংখ্যা ১১০০ জন। ট্রেনটিতে সব রকম বগি ছাড়াও রয়েছে ৫টি স্লীপারক্লাস(Sleeper class)।ট্রেনে মোট বগির সংখ্যা ২০টি এবং রয়েছে একটি প্যান্ট্রি কার। এই ‘সাউথ ষ্টার ‘(South Star) সংস্থাটি কোয়েম্বাটুরের। এই ট্রেন চালানোর জন্য দক্ষিণ রেলকে ১কোটি টাকা সিকিউরিটি ডিপোজিট হিসাবে দিয়েছে  ‘সাউথ ষ্টার ‘(South Star) সংস্থাটি। এছাড়া বছরে তারা ৩.৩৪ কোটি টাকা করে দেবে রেলকে। 

south star private train india

রেল সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কোনো সংস্থা এই ভাবে ট্রেন ভাড়া নিয়ে চালাতে পারবে ২ বছরের জন্য। তারা এমন রুট ঠিক করছিলো যেখানে রেলের নিজস্ব কোনো ট্রেন চলে না। এই ট্রেনে যাত্রা করার জন্য ভাড়া প্যাকেজ হিসাবে টাকা নিতে পারবে ওই সংস্থা এবং তার পরিমান কত কি হবে সেটাও ঠিক করবে ওই বেসরকারি সংস্থা। ট্রেন কোন কোন স্টেশন এ দাঁড়াবে সেটাও ঠিক করতে পারবে ওই বেসরকারি সংস্থা। ট্রেনের নিরাপত্তার মূল দায়িত্বে আরপিএফ(RPF) থাকলেও ট্রেনের ভিতরে নিরাপত্তার জন্য ওই সংস্থাকেই ব্যবস্থা করতে হবে।এই সব মেনেই ট্রেনের যাত্রা শুরু করা হয়।

আরো পড়ুন :-Litlle Babies Now Could Travel With Mother In Train |মায়ের পাশে শুয়ে যেতে পারবে ছোট্ট শিশু ,ভারতীয় রেলের অভিনব উদ্যোগ

 রেলের থেকে ভাড়া নেওয়া হলেও প্রত্যেকটি বগিকে আলাদা করে সুন্দর ভাবে সাজিয়েছে এই বেসরকারি সংস্থা ‘সাউথ ষ্টার’।ট্রেনে যাত্রীদের খাওয়াদাওয়া যাতে উন্নতমানের এবং গুণগতমান যেন ভাল হয় তার জন্য একজন অভিজ্ঞ সেফ রাখা হয়েছে। যাত্রীদের পরিষেবা দেয়ার জন্য ভালো হাউস কিপিং সংস্থার লোক-জন কেও রাখা হয়েছে। ট্রেনে বিনোদনের জন্য কিছু ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।    

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *